ঈদ,মানবিকতা, মূল্যবোধ,স্রষ্টার রহমত

স্বদেশ জার্নাল → প্রকাশ : 13 Jul 2022, 10:51:56 PM

image06

                                                   মোঃ জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী।

কথা ছোট ছোট, ব্যথা বড় বড়
হয়ে যায় হৃদয়েতে গাঁথা,
মানুষ ক্ষণিকের যাত্রী, ছুটে চলে দিবা-রাত্রি
চলে যায়, থেকে যায় কথা।
 

কান্দিয়া বলে ওগো,আমাকে নিয়ে চলো
যেখানে হবে নিরুদ্দেশ,
তুমি ছাড়া এ জীবন, বৃথা হবে সব স্বপন
থাকুক ভালোবাসার অনন্ত রেশ।
বলি তা হয়না কভু,জানে তাহা মহাপ্রভু
হয় না কখনো তা সমান,
সকলেই চলে যাবে,যার যখন সময় হবে
বিধাতার আসিলে সমন।
আমি যাই তুমি থাকো, রক্তের বন্ধন দেখো
পৃথিবীকে দেখো অনুক্ষণ,
যে বাঁধনে বাঁধা তরী,গিয়েছে ফসলে ভরি
শূন্য হতে দাও কিছুক্ষণ।
বলে প্রভূ আমায় নাও,তারে তুমি রেখে যাও
তারে ছাড়া থাকিব কেমনে?
হবে জীবন মূল্যহীন,যদি সে হয় বিলীন
শোক আমি সইব কেমনে?
বাতি খানা মিটমিট, জ্বলিতেছে ঠিক ঠিক
কাঁদিতেছে বধু তার ঘরে
নাচিতেছে পশু এক,মাথায় তার মাড়ের ড্যাগ
ঘন্টা কিছু বাঁধা তার গলে।
বলে আযরাইল ভাই,রোগী কিন্তু আমি নই
রোগী আছে খাটের উপরে,
নিতে হলে তারে নাও,আমারে প্রাণ ভিক্ষা দাও
আমি নিচে বিছানার পরে।
দিছি বাতি নিভাইয়া,তোমা তে ভয় পাইয়া
তুমি কিন্তু ধরিও না ভুলে,
এতক্ষণ যা মুখে কইছি,সব ছিল মিছামিছি
জগত কিন্তু এভাবেই চলে।
করোনায় মরেছে ভাই, তারে দেখার কেউ নাই
রাস্তায় রয়েছে লাশ পড়ে,
যে জন নয় আপন, সে এখন আপনজন
মানবতা এভাবেই মরে।
ঈদের নামাজ পড়ি,সামাজিক দূরত্ব রাখি
আনন্দ কোলাকুলি নাই,
রাস্তায় দেখা হলে,দু'হাত নাড়িয়ে বলে
কেমন আছেন?ভালো আছেন ভাই?
করোনা দিয়েছে শিক্ষা, কখনো করো না ভিক্ষা
স্মর শুধু মহা প্রভূর নাম,
তিনিই পারেন থামাতে,তালা-চাবি তাঁর হাতে
রহমত তিনি করেন দান।


Share

বিজ্ঞাপন
© All rights reserved © 2022 swadeshjournal.news Design & Developed by : alauddinsir